আইডিয়া

ক্রেতাদের নিয়ে নিয়মিত লেখার আইডিয়াই বিক্রেতার সফলতা

মোঃ দেলোয়ার হোসেন।

প্রকাশিত: ১৯:২০, ৩১ মে ২০২২

ক্রেতাদের নিয়ে নিয়মিত লেখার আইডিয়াই বিক্রেতার সফলতা

ক্রেতাদের নিয়ে নিয়মিত লেখার আইডিয়াই বিক্রেতার সফলতা  

প্রযুক্তির এই যুগে আমরা যেকোন কিছু বিনামূল্যে প্রচার ও বিনিময় করতে পারি। এটি আমাদের জন্য প্রযুক্তির আশির্বাদ। শিক্ষা, বিনোদন, ব্যবসা-বাণিজ্য, যোগাযোগ থেকে শুরু করে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সবকিছু সহজ করে দিয়েছে ইন্টারনেট তথা প্রযুক্তি। এই সুবিধা লুফে নিয়ে আরও ভালো ভাবে কাজে লাগাতে উদ্যমী হওয়া প্রয়োজন। 

প্রযুক্তির কল্যাণে আমাদের সমাজে উদ্যোক্তা হওয়ার পরিবেশ দিনে দিনে বিস্তৃত হচ্ছে। নিজ উদ্যমে ই-কমার্স ব্যবসা থেকে শুরু করে ব্লগিং, ফটোগ্রাফি, কনটেন্ট তৈরি, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সহ নানার রকম সৃজনশীল কাজে উদ্যোগী হচ্ছে এ প্রজন্মের তরুণ ও নারীরা। তাদের সিংহভাগ উদ্যোগ শুরু করে শূন্য হাতে বা স্বল্পমূলধন দিয়ে। তাই মার্কেটি বাজেট নেই তাদের। কিন্তু নিজ উদ্যোগ এগিয়ে নিতে ক্লায়েন্ট হ্যাপী করা খুবই প্রয়োজন।

ফেসবুকে নিজ প্রোফাইলে নিয়মিত একজন করে ক্লায়েন্ট কে নিয়ে লিখলে এটি হবে মার্কেটিং এর সেরা বিনিয়োগ। গত রাতে ”ক্রেতা বিক্রেতার উর্ধ্বে সুন্দর সম্পর্ক তৈরি হয়েছে” শিরোনামে সাক্ষাৎকার টি নেওয়ার সময় জানতে পারলাম, বিক্রেতা এই কাস্টমার (মিফতাহুল জান্নাত) কে উপন্যাসের নায়িকা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন! এবং তাকে নিয়ে ফেসবুকে বেশ কিছু পোস্ট দিয়েছিলেন। যার ফলে তিনি সেই বিক্রেতার প্রতি খুবই হ্যাপী।

এভাবে কাস্টমারের কথা, ফিডব্যাক, রিভিউ, ছবি সহ সবকিছু অনুমতি সাপেক্ষ নিজ প্রোফাইলে আন্তরিক ভাবে শেয়ার করলে তাকে (কাস্টমার) হ্যাপী করা সহজ হবে। সেই সাথে পুনরায় কাস্টমার হিসেবে পাওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যাবে। বিনামূল্যের কাস্টমার কে হ্যাপী করার জন্য এরচেয়ে ভালো মাধ্যম না পাওয়ারই কথা।

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট উদ্যোক্তা যদি প্রশ্ন করে আমি তো নিয়মতি কাস্টমার পাই না। প্রোফাইলে নিয়মিত লিখবো কিভাবে? আমি বলবো এই উদ্যোক্তার ই সুযোগ বেশি। তিনি যখন কোন ইভেন্ট আয়োজন করেন, সেখানে প্রচুর মানুষের পদচারণা ঘটে। অতিথিদের সাথে আলাপের সময় যে ফিডব্যাক গুলো উঠে আসে তা নিয়ে নিয়মিত লিখতে পারে। তেমন ব্লগারের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। যে পাঠকরা নিয়মিত আর্টিকেল গুলো পড়ে এবং মন্তব্য করে তাদের নিয়ে লেখা যায় নিজ প্রোফাইলে।

যারা পণ্য নিয়ে অনলাইনে কাজ করেন তারাও নিয়মিত লিখতে পারেন আপনাদের ক্রেতাদের নিয়ে। তাদের পরিবারের সদস্যদের মন্তব্য গুলোও গল্প আকারে শেয়ার করতে পারেন। এতে করে সেই ক্রেতা যেমন আনন্দিত হবে তেমনি সম্ভাব্য ক্রেতাদের আস্থা তৈরি হবে। 

সিনথিয়া

সর্বাধিক জনপ্রিয়