নিজে করি

হোম মেড কেকের কদর বাড়ছে অনলাইনে

মোঃ দেলোয়ার হোসেন।

প্রকাশিত: ১৮:১০, ৫ আগস্ট ২০২২

হোম মেড কেকের কদর বাড়ছে অনলাইনে

হোম মেড কেকের কদর বাড়ছে অনলাইনে

হোম মেড কেক বর্তমানে একটা নতুন ট্রেন্ড বা ব্যাবসায়িক ধারা বলা যায়। কেক নিয়ে কাজ করবো সেই চিন্তা থেকেই প্রফেশনালি ’কেক বেকিং’ কোর্স সম্পন্ন করি। তারপর নিয়মিত অনলাইনে সময় দেওয়া শুরু করি, সেই থেকেই শুরু আমার পথ চলা।

বেশ ভালই চলছে আমার উদ্যোগ। আমি নাছরিন সুলতানা রুমা আমার উদ্যোগের নাম নাছরিন'স ক্রিয়েশন।

হোম মেড কেক নিয়ে কাজ করতে গিয়ে শুরুতে বহুরকম চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছে। চড়া দামে কেকের কাঁচা মাল বা উপাদান ক্রয় করে সে অনুযায়ী দাম নির্ধারণ করেছি। অনেক সময় হাতের কাছে প্রয়োজনীয় উপকরণ না পেয়ে অধিক মূল্য ব্যয় করে ঢাকা থেকে কাঁচা মাল সংগ্রহ করেছি।  

স্বাস্থ্যকর পরিবেশে গুণগত মান বজায় রেখে ১-২ টা করে কেক তৈরির কারণে দোকান বা বেকারির তুলনায় দাম একটু বেশি হয়। ফলে ক্রেতাদের কেউ কেউ অনাগ্রহ প্রকাশ করতেন। বর্তমানে আমাদের ক্রেতাদের অনেকেই দামের বিষয়টি উপলব্ধি করছেন।

অন্য যেকোন পণ্যের তুলনায় যত্নের সাথে করতে হয় কেক ডেলিভারি তাই চার্জও একটু বেশি ব্যয় হয়। প্রায় সময় ডেলিভারি ম্যান পাওয়া যায় না তাই অনেক সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছে। দেশের ডেলিভারি পদ্ধতি মনের মত ছিল না এরফলে ঝুঁকি থেকে যেতো সবসময়। এসব কারণে শুরুর দিকে অনেক বিপাকে পড়তে হয়েছে। দুশ্চিন্তায় কাটতো সময়গুলো। তবে এসব অসুবিধা কখনো আমাকে হতাশ করতে পারেনি। আমি সবসময় সম্ভাবনা দেখেছি এবং সে অনুযায়ী সামনে আগানোর চেষ্টা করেছি।

কেক তৈরি উপকরণ সংগ্রহ, ডেলিভারি ম্যান না পাওয়া ইত্যাদি কারণে পরিবার থেকে বিভিন্ন রকমের কথা শুনতে হয়েছে। প্রতিনিয়ত এরকম সমস্যার সম্মুখীন হয়েছি। তবে এই অবস্থা থেকে অনেকটাই বেরিয়ে আসতে পেরেছি। বর্তমানে আত্মীয়স্বজন থেকে শুরু করে ক্রেতা, প্রতিবেশী সবাই আমার কাজ নিয়ে প্রশংসা করে।

কেবল জন্মদিন নয় বরং বিকেলের নাস্তা, বাচ্চাদের টিফিন, পিকনিক বা যেকোন উৎসবেই মানুষের এখন প্রথম পছন্দ কেক। হোম মেড কেক স্বাস্থ্যকর, রুচিশীল ও ফ্রেশ হয়। যার ফলে চাহিদা দিনে দিনে বাড়ছে। আর মানুষ গুরুত্ব দিচ্ছে হোম মেড কেক কে।

আমরা যারা হোম মেড কেক নিয়ে কাজ করি তারা ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী অর্ডার পাওয়ার পর ফ্রেশ উপকরণের সাহায্যে কেক তৈরি করি। যা নিঃসন্দেহে স্বাস্থ্যসম্মত হয়। স্বাদ বা রূপ বাড়াতে ব্যবহার করি না কোন কেমিক্যাল। এমনকি লম্বা সময় ধরে সংরক্ষণের জন্য কোন প্রিজারভেটিভ ব্যবহার করি না। কেকের প্রধান আকর্ষণ ক্রিম। মাখন বা হুইপড ক্রিমের সাহায্যে কেক তৈরি করা হয়। ফলে ধীরে ধীরে হোম মেড কেকের চাহিদা বাড়ছে।

লেখকঃ ফ্রিল্যান্সার লেখক ইপ্রফিট এবং স্বত্বাধিকারী, আওয়ার শেরপুর ডটকম।
 

সিনথিয়া

সর্বাধিক জনপ্রিয়