তথ্য ব্যাংক

সন্তানদের পছন্দের বিষয়ে পড়ালেখা করতে কিশোর ক্লাসিকস

জান্নাতুল ফেরদৌস 

প্রকাশিত: ১৬:২২, ১৬ আগস্ট ২০২২

সন্তানদের পছন্দের বিষয়ে পড়ালেখা করতে কিশোর ক্লাসিকস

 সন্তানদের পছন্দের বিষয়ে পড়ালেখা করতে কিশোর ক্লাসিকস

একজন উদ্যোক্তা তিনি নারী হোন বা পুরুষ সবার উচিত নিজের পারিবারিক দায়দায়িত্ব, বিজনেস সামলানোর পাশাপাশি সন্তানের দিকেও নজর রাখা।

তিনি যে শুধু নিজের কাস্টমার আর বিজনেসের দিকে মনোযোগ দিবেন তাহলে কিন্তু হবে না,নিজের সন্তানকে সর্বোচ্চ প্রায়োরিটি দিয়ে কাজ করে যেতে হবে।

বাবা-মায়েরা জীবনে যত কষ্ট করে,তার সবটাই নিজের সন্তানের ভালোর জন্য।সন্তান যেন ভবিষ্যতে সুখে থাকে,তার বর্তমানটা যেন সুন্দর হয় ইত্যাদি চিন্তা ঘিরেই বাবা-মায়েদের কাজের পরিধি গড়ে ওঠে।

উদ্যোক্তা কিংবা চাকুরীজীবী হিসেবে বাবা-মা কিংবা অভিভাবকদের দায়িত্ব অনেক বেশি বেড়ে যায়।কারণ সন্তানদেরকে নিয়মিত পর্যাপ্ত সময় দেওয়া এবং তাদের কে সঠিক শিক্ষা দিয়ে বড় করে তোলা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ একটা কাজ।

অনেক বাবা-মায়েরা নিজেদের কাজের ব্যস্ততাকে অযুহাত দিয়ে সন্তানদের সাথে কোয়ালিটি টাইম অতিবাহিত করেন না।এতে করে ফলাফল হতে পারে ভয়াবহ।কারণ যে সন্তানের ভালোর জন্য,ভবিষ্যৎ সুন্দর করার জন্য আপনারা দিনের পর দিন কঠোর পরিশ্রম করছেন এবং এর ফলে নিজের সন্তানকে ঠিকমতো সময় দিচ্ছেন না, সেই সন্তান বড় হবে প্রচন্ড মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে।

আর এই চাপ যারা নিতে পারে না,সেসব বাচ্চারা বড় হয়ে ভুলপথে চালিত হওয়ার মাধ্যমে নিজেদের জীবনটাকে ধ্বংস করে দিতে পারে।যা কি না কারোরই কাম্য নয়।এখন একজন উদ্যোক্তা তিনি বাবাও হতে পারেন,মাও হতে পারেন – তিনি যদি চিন্তা করেন আমি আমার সন্তানের ভালো ভবিষ্যৎ এর জন্য দিনরাত কষ্ট করছি,আর এর জন্য আমার সন্তানটিকে তেমন সময় দিতে পারছি না।যাই হোক,বাচ্চা মানুষ যেহেতু একটু কান্নাকাটিই তো করবে।পরে আবার সব ভুলে যাবে।আর বড় হতে হতে সব মানিয়ে নিতে পারবে।আমি এখন কাজ নিয়েই বেশি সময় দিই।

কিন্তু আপনি জানেন না একটা বাচ্চার প্রতি আপনার ছোট ছোট অবহেলা,তাকে পর্যাপ্ত সময় না দেওয়া থেকেই আপনার প্রতি তার একটা ক্ষোভ জন্ম নিবে আর সময়ের সাথে সাথে তা কেবলই বাড়বে বৈ কমবে না।তাই এই ক্ষেত্রে উদ্যোক্তাকে তার সন্তানের প্রতি অবশ্যই সম্পূর্ণ দায়িত্বশীল হতে হবে।

এরপর বেশিরভাগ বাবা-মায়েরা যেটা করেন সন্তানের উপর নিজের ইচ্ছা-অনিচ্ছা চাপিয়ে দেন।সন্তানের কি ভালো লাগে,না লাগে তার গুরুত্ব দেন না তারা।আর এই কাজটা বেশি করা হয় পড়াশোনা কিংবা কাজের ক্ষেত্রে।বাবা-মায়েরা সন্তানের পছন্দের বিষয়ে তাদেরকে পড়তে দিতে ইচ্ছুক হন না (কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া)।সন্তান যে কাজ করতে ভালোবাসে, তাদের কাছে সেই কাজের গুরুত্ব না থাকায় অথবা কম মূল্যবান মনে হওয়ায় তারা সন্তানকে সেই কাজ করতে দিতে চান না।

এতে করে সন্তানেরা সারাজীবন মনে ক্ষোভ পুষে রাখে,যার ফলে সন্তানের সাথে বাবা-মায়েদের দূরত্ব আরো বাড়ে।এবং সন্তানটি নিজের জীবনে ভালো ক্যারিয়ার গড়তে অনেকসময়ই ব্যর্থ হয়।

একজন উদ্যোক্তা হিসেবে আপনার মনে রাখা উচিত যে আপনার বাবা-মা কিংবা অভিভাবকেরা যখন আপনার পছন্দের বিষয়টিকে গুরুত্ব দেয়নি তখন আপনার কেমন লেগেছিল।হয়তো আপনার পছন্দের বিষয়ে পড়াশোনা করতে পারলে আপনি জীবনে সফল হতে পারতেন,যার আফসোস এখনো আপনার মনে রয়ে গেছে আগের মতোই।

উদ্যোক্তাকে যেমন নিজের বিজনেসের খুঁটিনাটি সবদিকেই সমান নজর রাখতে হয়,তেমনি অবশ্যই তার সন্তানের পছন্দ-অপছন্দকে গুরুত্ব দেওয়ার,তাদের মতামতকে যাচাই করে প্রাধান্য দেওয়ার ক্ষমতাও অর্জন করতে হবে।

আর এই ক্ষেত্রেও সেবা প্রকাশনীর কিশোর ক্লাসিকস সিরিজের লিটল উইমেন,সিক্রেট অভ উইলহেম স্টোরিজ,সুইস ফ্যামিলি রবিনসন, লরা ইঙ্গলস ওয়াইল্ডারের আত্মজীবনী গুলো উদ্যোক্তাদের জন্য দারুণ এক উদাহরণ হয়ে উঠতে পারে।

লরা আর আলমানযোর পারিবারিক জীবন,লিটল উইমেন,সুইস ফ্যামিলি রবিনসন গল্পগুলো সুন্দর,আনন্দময় এবং সুখী পারিবারিক জীবনের সেরাসব গল্প।এই গল্পগুলো থেকে উদ্যোক্তারা শিখতে পারবে যে বাবা এবং মা হিসেবে সন্তানের প্রতি কতটা দায়িত্বশীল, সহানুভূতিসম্পন্ন হওয়া যায়।

অবশ্যই বাবা-মায়েরা নিজ নিজ সন্তানের প্রতি যথেষ্ট দায়িত্বশীল।কিন্তু তারপরও বাবা-মা,অভিভাবকদেরও সিদ্ধান্ত নিতে,তাঁদের কাজের ধারায় ভুল হয়।অনেকসময়ই তাঁদের একটা ভুল সিদ্ধান্ত সন্তানের জীবনকে তছনছ করে দেয়,এমন উদাহরণ বিরল নয়।ভুল প্যারেন্টিং এর কারণে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সন্তানদের কষ্ট পেতে হয়,যা অভিভাবকেরা বুঝতে পারেন না।

এক্ষেত্রে কিশোর ক্লাসিকস পড়া উচিত উদ্যোক্তা বাবা-মায়েদের।এতে করে তারা বুঝতে পারবেন অন্যান্য বিষয়ের মতো সন্তানের পছন্দের বিষয়ে যদি তাকে পড়াশোনা কিংবা কাজ করতে দেওয়া হয়,তাহলে তাদের সন্তানটি সেই কাজ করবে আনন্দ নিয়ে।যার ফলে একসময় সন্তানটি তার পছন্দের কাজে হয়তো একসময় সেরা হয়েও উঠতে পারে।আর এতে করে উদ্যোক্তা নিজেও ভালো করে কাজে মনোযোগ দিতে পারবেন।

আমরা দেখতে পাবো লিটল উইমেন গল্পটিতে বাবা-মা মেয়েদেরকে স্বাধীনতা এবং সঠিক শিক্ষা দেওয়ার পাশাপাশি সন্তানদের উপর কখনোই কোনো বিষয়ে জোরাজুরি করেননি।যার ফলাফলস্বরুপ তাদের ৪ কন্যার প্রত্যেকেই তাদের পছন্দের কাজে পারদর্শী হয়ে উঠেছিল।বড় বোন মেগ সংসার সামলানোয়,জো লেখালিখিতে,বেথ পিয়ানো বাজানোয় এবং অ্যামি ছবি আঁকায় দক্ষ হয়েছিল।আর তাদের এই দক্ষতা তাদের জীবনকে আরো বেশি সুন্দর করে তুলেছিল।

আবার লরা এবং আলমানযোর জীবনেও আমরা তাদের বাবা-মায়েদের একইরকম সচেতনতাবোধ দেখতে পাই।এছাড়া ' সিক্রেট অভ উইলহেম স্টোরিজ' গল্পে মি ডাইডাল বড় ভাই হয়ে যখন ছোট ভাই মার্ককে নিজের পছন্দের বিষয়ে পড়ার সুযোগ তৈরী করে দেন এবং ভাইয়ের সফলতা দেখে মি ডাইডাল যখন গর্ব অনুভব করেন তখন এটাও অভিভাবকদের জন্য একটা গুরুত্বপূর্ণ লেসনে পরিণত হয়।

আসলে আপনি একজন উদ্যোক্তা হলেও কিশোর ক্লাসিকস আপনার বিজনেস সামলানোর কাজে আপনাকে সাহায্য করার পাশাপাশি আপনার ব্যক্তিগত জীবনকে সুন্দর, ইতিবাচক করে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম।

একবার নিজেকে এই সিরিজে যুক্ত করেই দেখুন না,গল্পগুলো পড়ার পর কি ফলাফল পান তা নাহয় পরবর্তীতে আপনি নিজেই সবার মাঝে শেয়ার করলেন!!

লেখকঃ ফ্রিল্যান্সার লেখক ইপ্রফিট এবং শিক্ষার্থী (মুমিনুন্নিসা সরকারি মহিলা কলেজ, ময়মনসিংহ )
    

সিনথিয়া

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বাধিক জনপ্রিয়