স্বাক্ষাতকার

কনটেন্টের প্রেমে পড়ে কেনাকাটা করেন

মোঃ দেলোয়ার হোসেন।

প্রকাশিত: ১৮:১৩, ৬ আগস্ট ২০২২

কনটেন্টের প্রেমে পড়ে কেনাকাটা করেন

কনটেন্টের প্রেমে পড়ে কেনাকাটা করেন

আবু মো: আব্দুল্লাহ সহকারী অধ্যাপকে হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন দেশের বেসরকারি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে। ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন পোস্ট ফেসবুক নিউজ ফিডে নিয়মিত দেখতে পান তিনি। এসব কনটেন্টের প্রেমে পড়ে বাড়ি তৈরি খাবার সহ বিভিন্ন ধরণের দেশীয় শৌখিন ও প্রয়োজনীয় পণ্য কেনাকাটা করেন অনলাইনে।

হাসতে হাসতে আব্দুল্লাহ ব্যাখ্যা করেন, ফেসুকের পোস্টগুলো পড়ে যখন বিভিন্ন আঞ্চলিক পণ্যগুলো দেখতে পাই তখন আর না কিনে থাকতে পারি না। তার মতে, উদ্যোক্তারা এত চমৎকার ভাবে পণ্য সম্পর্কিত তথ্যগুলো তোলে ধরেন যা সেই পণ্যের প্রেমে পড়তে দারুণ ভাবে প্রভাব সৃষ্টি করে। এছাড়াও বাড়ির তৈরি খাবারগুলো ছবি বা বর্ণনা থেকে অবচেতন মনেই অর্ডার করেন অধ্যাপক আব্দুল্লাহ।

অনলাইনে কেনাকাটা করে এখন পর্যন্ত অধ্যাপক আবু মো: আব্দুল্লাহর ঝুলিতে কোন নেতিবাচক অভিজ্ঞতা জমা হয়নি। তাই তিনি আনন্দ নিয়ে কেনাকাটা করছেন অনলাইনে।

শুধু অধ্যাপক আব্দুল্লাহ নয়, এমন প্রচুর ভোক্তা আছেন যারা উদ্যোক্তাদের কনটেন্টে মুগ্ধ হয়ে অনলাইনে কেনাকাটা করেন। মূলত গতানুগতিক কনটেন্টের বাহিরে তথ্য সমৃদ্ধ কনটেন্টগুলো তাদেরকে অনলাইনে কেনাকাটায় আগ্রহী করে।

আমাদের দেশের প্রায় সকল উপজেলায়, এমনকি অনেক ইউনিয়নেও বিশেষ পণ্যের সমাহার রয়েছে। এসব পণ্য সম্পর্কে স্থানীয় লোকজন ব্যতীত দেশের মানুষ তেমন একটা জানেন না। কিন্তু দেশি পণ্যের ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় দেশব্যাপী ছড়িয়ে থাকা অচেনা পণ্যগুলো পরিচিতি পাচ্ছে। তাদের কনটেন্টগুলো দেখে কেনাকাটায় আগ্রহীন হন অধ্যাপক আব্দুল্লাহর মতো ভোক্তারা।

নিয়মিত কনটেন্ট প্রকাশের ক্ষেত্রে উদ্যোক্তাদের আরও বেশি মনোযোগী হওয়ার বিকল্প নেই। যতবেশি তথ্যবহুল এবং স্বতন্ত্র কনটেন্ট প্রকাশ করতে পারবে তত বেশি সেই পণ্য সম্পর্কে মানুষ জানবে এবং ব্যবহারে আগ্রহী হবে। মূলত বিক্রির উদ্দেশ্যে নয় কনটেন্ট প্রকাশ করতে হবে মানুষের তথ্যের চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে। তাহলেই মিলবে এর সুফল। কারণ সরাসরি বিক্রি পোস্ট এড়িয়ে যেতে চায় সবাই।

কনটেন্ট প্রকাশের ক্ষেত্রে স্টোরি টেলিং কে যত বেশি গুরুত্ব দেওয়া যাবে তত বেশি গ্রহণযোগ্যতা পাবে সাধারণ মানুষের কাছে। এসব কনটেন্ট দীর্ঘ মেয়াদে সুফল নিশ্চিত করবে তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। দেশি পণ্য নিয়ে যত বেশি কনটেন্ট বাড়াতে উদ্যোক্তারা আগ্রহী হবে তত ভালো ভাবে এর সুফল ভোগ করতে পারবে সকলে। শুধু মাত্র নিজের প্রতিষ্ঠানের কথা চিন্তা করে পুরো ইন্ডাস্ট্রির উপকারের কথা মাথায় রেখে সবাই কনটেন্টে তৈরি ও প্রকাশ করতে লাভবান হবে সকলে।

লেখকঃ ফ্রিল্যান্সার লেখক ইপ্রফিট এবং স্বত্বাধিকারী, আওয়ার শেরপুর ডটকম।

সিনথিয়া

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বাধিক জনপ্রিয়